Deprecated: __autoload() is deprecated, use spl_autoload_register() instead in /customers/8/3/c/europerkatha.com/httpd.www/wp-includes/compat.php on line 502 রোহিঙ্গা সংকট: জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করলো মিয়ানমার – Europerkatha.com

রোহিঙ্গা সংকট: জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করলো মিয়ানমার

Posted on by

আন্তর্জাতিক ডেস্ক,মিয়ানমারঃ রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যায় সেনা নেতৃত্বের দায় রয়েছে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশনের, এমন প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে মিয়ানমার। সোমবার জাতিসংঘের ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশন ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করার কয়েকঘণ্টা পরই মিয়ানমার সরকার সেটি প্রত্যাখ্যান করে। খবর দ্য ইরাবতীর।

মিয়ানমার প্রেসিডেন্ট অফিসের মুখপাত্র ইউ জ হতয়ে বলেন, ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশনের প্রতিবেদনের ব্যাপারে সরকারের ‘একটি স্পষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি’ রয়েছে। মিয়ানমার জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল (ইউএনএইচআরসি)-এর সমাধানের প্রস্তাব গ্রহণ করেনি। তাই এটি বাস্তবায়নের ব্যাপারে মিশনের প্রস্তাব আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।ওই মুখপাত্র বলেন,গেলো বছর থেকেই মিয়ানমার ইউএনএইচআরসি’র সমাধান প্রস্তাব থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন এবং ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশন গঠনের বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করেছে।মুখপাত্র জ হতয়ে আরও বলেন,যখন মিশন মিয়ানমার সফরের জন্য অনুমতি চেয়েছিল, আমরা তাদের অনুমতি দেইনি। তাদের আমরা জানিয়েছিলাম যেহেতু আমরা সমাধান সূত্রতে সম্মত নই, তাই সহযোগিতা করবো না।

জাতিসংঘের ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশনের প্রতিবেদনে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের হত্যা,ধর্ষণ,গণহত্যা, মানবতাবিরোধী অপরাধ ও যুদ্ধাপরাধসহ বিভিন্ন অপরাধের কথা উল্লেখ করা হয়।প্রতিবেদনে এইসব অপরাধের জন্য মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লেইংসহ আরও পাঁচজনকে বিচারের মুখোমুখি করতে বলা হয়।এছাড়া রাখাইনে সংঘটিত অপরাধ বন্ধে হস্তক্ষেপ করতে ব্যর্থ হওয়ায় দেশটির ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সু চি’রও সমালোচনা করা হয়েছে মিশনের প্রতিবেদনে।

উল্লেখ্য,গেলো বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনে সেনা অভিযান শুরু হলে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থাগুলোর অভিযোগ রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতন চালিয়েছে।

Leave a Reply

Developed by: TechLoge

x